আমি হিন্দু কিন্তু আমি শুনেছি “তাহাজ্জুদ” নামাজে অনেক ফজিলত – পুলিশের মাইকিং !

মহামারি করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ে ভারতের রাজধানী দিল্লি এখন কার্যত মৃ’ত্যুপু’রীতে পরিণত হয়েছে। সেকানে ২৪ ঘণ্টায় জ্ব’লছে গণ চিতা। দেশটির হাসপাতালগুলোতে দেখা দিয়েছে তীব্র মেডিকেল অক্সিজেন সংকট।

ট্রিপল মিউ’ট্যান্ট করোনার নজিরবিহীন দাপট চলছে ভারতে। মুসলিম অধ্যুষিত এলা’কাগুলো’তে পুলি’শ মা’ইকিং করে মুসল’মান’দেরকে মসজিদে যেতে বলছে।

পুলিশ মা’ইকিং করে বলছে- “আমি হিন্দু কিন্তু আমি শুনেছি “তাহাজ্জুদ” নামা’জে অনেক ফজিলত, আপ’নারা তাহা’জ্জুদ পড়ুন, তারাবি পড়ুন, আমাদের সবার জন্য করোনা মুক্তির দোয়া করুন।সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম গুলো’তে ভার’তীয় পুলি’শের মা’ইকিং করা একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে।

যেভাবে ভাড়া বিমানে দেশ ছেড়েছেন বসুন্ধরার এমডির স্ত্রী–সন্তান

মোসারাত জাহান (মুনিয়া) কে আ’ত্মহ’ত্যায় প্ররো’চনা মা’ম’লার একমাত্র আসামি সায়েম সোবহান আনভীরের স্ত্রী-সন্তান ও পরিবারের কয়েক সদস্য দেশ ছেড়েছেন। আজ বৃহস্পতিবার রাতে বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ ও অভিবাসন পুলি’শের একটি সূত্র এ তথ্যের সত্য’তা নিশ্চিত করেছে।

আনভীরের বিরু’দ্ধে মা’ম’লা হওয়ার তিন দিনের মাথায় তাঁরা দেশ ছাড়লেন।বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের (বেবিচক) চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল মফিদুর রহমান বলেন, বুধবার তাঁরা একটি বিশেষ ফ্লাই’টের অনুমতি নিয়েছেন।

আজ তাঁদের দেশ ছাড়ার কথা। জানা গেছে, ফ্লাইটটি ঢাকার হজরত শাহজালাল আন্ত’র্জাতিক বিমানবন্দর থেকে বিকেলে রওনা দেয়। এটির গন্তব্য দুবাইয়ের আল মাকতুম আন্ত’র্জাতিক বিমানবন্দর।

চার্টার্ড ফ্লাইটের (ভাড়া করা বিমান) সদস্য ছিলেন আটজন। যাত্রী তালিকা অনুযায়ী দেশ ছেড়েছেন সায়েম সোবহান আনভীরের স্ত্রী সাবরিনা সোবহান, তাদের দুই সন্তান (অপ্রাপ্তবয়স্ক বলে নাম লেখা হলো না),

ছোট ভাই সাফওয়ান সোবহানের স্ত্রী ইয়াশা সোবহান এবং তাদের মেয়ে ও দুই পরিবারের তিনজন গৃহ’কর্মী ডায়ানা হার্নানডেজ চাকানান্দো, মোহাম্মদ কাদের মীর ও হোসনে আরা খাতুন। এর আগে সায়েম সোবহান আনভীরের ছোট ভাই সাফওয়ান সোবহানও দেশ ছাড়েন।

গত ২৬ এপ্রিল মা’মলা হওয়ার পর গত ২৭ এপ্রিল পুলিশের আবেদনের পরি’প্রে’ক্ষিতে সায়েম সোবহান আনভীরের বিদেশ যাত্রায় নিষে’ধাজ্ঞা আরোপ করেন আদালত। যদিও আনভীর দেশ ছেড়েছেন এমন প্রচা’র আছে।

গতকাল বৃহ’স্পতিবার গুল’শান বিভাগের উপ’কমি’শনার সুদীপ কুমার চক্রবর্তী সাংবাদিকদের জানান, অভিবাসন কর্তৃ’পক্ষের ডেটা বেজের তথ্য অনুযায়ী সায়েম সোবহান আনভীর দেশেই আছেন। তিনি দুটি পাসপোর্ট ব্যবহার করেন। কোনোটি ব্যবহার করে গেছেন দেশত্যাগের কোনো তথ্য নেই।

Facebook Comments Box