কয়রায় বেড়িবাঁধ ভেঙে নদীতে, তলিয়ে যেতে পারে ১২ গ্রাম

পার্শ্ববর্তী সুন্দরবন সংলগ্ন সাতক্ষীরার শ্যামনগরে ব্যাপক নদীভাঙনের পর খুলনার কয়রা উপজেলায়ও ভাঙন আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। এরই মধ্যে জেলার দক্ষিণ বেদকাশী এলাকায় বাঁধে ব্যাপক ফাটল দেখা দিয়েছে। নদীতে চলে গেছে বাঁধের দুই-তৃতীয়াংশ।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছ, দক্ষিণ বেদকাশী ইউনিয়নের চরামুখা কানের গোড়ায় বেড়িবাঁধের অর্ধেকের বেশি কপোতাক্ষ নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। রোববার ভোরের দিকে বাঁধ ভেঙে নদীতে চলে যায়। যেকোনো সময় বাঁধ পুরোপুরি ভেঙে গিয়ে তলিয়ে যেতে পারে ১০ থেকে ১২টি গ্রাম।

কয়রায় বেড়িবাঁধ ভেঙে নদীতে, তলিয়ে যেতে পারে ১২ গ্রাম

দক্ষিণ বেদকাশী ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য ওসমান গনি বলেন, ভোর ৪টার দিকে ভাটার সময় বেড়িবাঁধ ভেঙেছে। ওয়াপদায় বেড়িবাঁধের কাজ চলছিল। কপোতাক্ষ নদের জোয়ারের পানির চাপ বৃদ্ধি পাওয়ায় বাঁধের তিন ভাগের দুই ভাগ নদীগর্ভে চলে যায়। দুপুরে জোয়ারের পানির চাপ বাকি অংশটুকু ভেঙে নিয়ে যেতে পারে।

তিনি বলেন, এর আগেও এই এলাকায় কয়েকবার ভাঙন হয়েছে। সে সময় ঘরবাড়িসহ ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। জোয়ারের সময় যেভাবে পানি ঢুকবে তাতে বেদকাশী ইউনিয়নের ১৪ গ্রাম তলিয়ে যাবে। ১৪ গ্রামে প্রায় ৩০ হাজার মানুষ বসবাস করে। ভাঙন দেখা দেওয়ায় এসব মানুষ আতঙ্কিত হয়ে পড়েছে।

 

Facebook Comments Box