ছুটি না পেয়ে থানাতেই পুলি’শকর্মীর গায়ে হলুদ

করোনাভাইরাসের কারণে বিশ্ব এখন কঠিন সময় পার করছে। বৈশ্বিক এ মহামারিতে ফ্রন্টলাইনার হিসেবে নিরলস কাজ করছেন স্বাস্থ্য ও নিরাপত্তাকর্মীরা। এই অবস্থায় ছুটি না পেয়ে থানাতেই হয় এক নারী পুলিশকর্মীর গায়ে হলুদের অনুষ্ঠান।

ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের রাজস্থানের দুঙ্গারপুর থানায়। ভারতীয় সংবাদ সংস্থা এএনআই সূত্রে জানা গেছে, আশা নামের এই পুলিশকর্মীর গত বছর মে মাসে বিয়ে হওয়ার কথা ছিল।

কিন্তু করোনা মহামারি ও লকডাউনের কারণে তা সম্ভব হয়নি। এরপর চলতি বছরের ৩০ এপ্রিল বিয়ের দিন ধার্য হয়। কিন্তু এই পরিস্থিতিতে কোনোভাবেই ছুটি পাচ্ছিলেন না তিনি।

গায়ে হলুদের দিনও ডিউটিতে থাকতে হবে। তাই বাধ্য হয়ে থানা প্রাঙ্গনেই গায়ে হলুদের অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন সহকর্মীরা। পরিবারের সদস্যরা উপস্থিত থাকতে না পারলেও সুষ্ঠুভাবেই গায়ে হলুদের অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়।

তবে শেষ পর্যন্ত বিয়ের জন্য ছুটি পেয়েছেন আশা। থানার ইনচার্জ দিলীপ দান বলেন, ‘আমরা যখন জানতে পারি, ছুটি না পাওয়ায় নিজের গায়ে হলুদের জন্য আশা গ্রামের বাড়ি যেতে পারছে না, তখনই আমরা থানাতেই অনুষ্ঠানটি আয়োজনের সিদ্ধান্ত নিই।

কারণ গায়ে হলুদের দিন আর পরিবর্তন সম্ভব ছিল না। আমরা আশাকে চমকে দিতে চেয়েছিলাম। তবে সন্ধ্যার দিকে তার ছুটি মঞ্জুর হয় এবং তিনি গ্রামের উদ্দেশে রওনা হন।’

ভারতের দ্বিতীয় দফায় করোনাভাইরাস ভয়াবহ আকার ধারণ করছে। রেকর্ড হারে বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা। বিভিন্ন রাজ্যে লকডাউন ও নাইট কারফিউ জারি করা হয়েছে। চিকিৎসক, নার্স থেকে শুরু করে পুলিশকর্মী সবারই ছুটি বাতিল হয়েছে।

Facebook Comments Box