ধ্বংসাবশেষ মিলল নেপালে হারিয়ে যাওয়া বিমানের, সকল যাত্রীর প্রা’ণহানির শ’ঙ্কা

খোঁজ মিলেছে ভ্রমণের সময় মাঝ আকাশ থেকে নি’খোঁ’জ হওয়া নেপালের তারা এয়ারলাইন্সের ওই বিমানের। দেশটির মু’স্তাঙ্গের লার্জুঙ্গে উ’দ্ধা’র হয়েছে বিমানটির ধ্বংসাবশেষ। ওই বিমানে ১৯ যাত্রী ও ৩ ক্রুসহ মোট ২২ জন আরোহী ছিলেন। তাদের কারোই বেঁচে থাকার সম্ভাবনা নেই।

নেপালের অভ্যন্তরীণ রুটের এই ফ্লাইটটি পোখরা থেকে জমসমের দিকে যাচ্ছিল। তবে ভ্রমণের সময় মাঝ আকাশে থাকা অবস্থায় বিমানটির সঙ্গে রাডারের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। রোববার (২৯ মে) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স এবং ভা’রতীয় সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়া।

এদিকে বিমানটির ধ্বংসাবশেষ চিহ্নিত হলেও এখনও উ’দ্ধা’রকারী দল পাঠানো যায়নি। খা’রা’প আবহাওয়ার কারণে নামানো যাচ্ছে না হেলিকপ্টার। বিমানের কোনও যাত্রীই সম্ভবত বেঁচে নেই। পায়ে হেঁটে দু’র্ঘ’ট’নাস্থলের দিকে রওনা দিয়েছে একটি উ’দ্ধা’রকারী দল।

জানা গিয়েছে, সকাল ৯টা ৫৫ মিনিটে পোখরা থেকে জমসমের উদ্দেশে রওনা দেয় তারা এয়ারের ছোট বিমানটি। তাতে ২২ জন যাত্রী ছিলেন। তার মধ্যে চার জন ভা’রতীয়, তিন জন জা’পানের বাসিন্দা, তিন জন বিমানকর্মী এবং স্থানীয় কয়েক জন ছিলেন। ও়ড়ার কিছু ক্ষণের মধ্যেই বিমানের সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। পরে মু’স্তাঙ্গের লার্জুঙ্গে চিহ্নিত হয় বিমানের ধ্বংসাবশেষ।

Facebook Comments Box