‘প্রায়ই ঘরে খাবার থাকতো না, অনেক কষ্টে দিন কেটেছে’

ঢাকাই সিনেমার নায়ক ও ব্যবসায়ী অনন্ত জলিলের সহধর্মিণী আফিয়া নুসরাত বর্ষা। তিনি একের পর এক অভিনয় করে দর্শক হৃদয়ে স্থান করে নিয়েছেন। অনেকেই মনে করেন, সোনার চামচ মুখে নিয়ে জন্মেছিলেন বর্ষা। কিন্তু

সত্য হলো, বর্ষা সাধারণ পরিবারে বড় হয়েছেন। তাকে বড় হতে হয়েছে অভাব-অনটনে। জীবনের দুঃসময়ের স্মৃতিচারণ করেছেন বর্ষা নিজেই।

সম্প্রতি একটি বেসরকারি টিভি চ্যানেলের অনুষ্ঠানে অতিথি হয়ে নিজের জীবনের জানা অজানা অনেক গল্পই শোনালেন বর্ষা। সেখানে তার অতীত নিয়েও কথা বলেন তিনি।

বর্ষা বলেন, আমি খুব সাধারণ ঘরের মেয়ে। এমনও হয়েছে সকালে স্কুলে গেছি না খেয়েই। কারণ আমার ঘরে খাবারও ছিল না। একদিন হঠাৎ স্কুলে জ্ঞান হারিয়ে ফেলেছিলাম। আমার টিচার আমাকে তার বাসায় নিয়ে ডিম-খিচুড়ি খাইয়েছিলেন।

কথাগুলো বলতে বলতে বর্ষা আবেগ আপ্লুত হয়ে পড়েন। ‘আমার ৮-১০ বছর পর্যন্ত অনেক কষ্টে দিন কেটেছে।

খাবারটাও ঠিকমতো পাইনি। তারপর আলহামদুলিল্লাহ, আমার ফ্যামিলি এই অবস্থা ওভারকাম করতে পেরেছে।’ নিজেকে সামলে নিয়ে বলেন বর্ষা।

এই চিত্রনায়িকা আরো বলেন, প্রাইমারি শেষ করে হাই স্কুলে যাওয়ার পরও টিচারদের ভালোবাসা পেয়েছি। বার্ষিক অনুষ্ঠানে নাটক করতে শিক্ষকরা আমাকে ছেলেদের চরিত্র দিতেন। একবার চেয়ারম্যান চরিত্রে অভিনয় করে কলম উপহার পেয়েছিলাম।

উল্লেখ্য, ‘খোঁজ-দ্য সার্চ’ সিনেমায় অভিনয় করে চলচ্চিত্রে পা রাখেন বর্ষা। ইফতেখার চৌধুরী পরিচালিত এ সিনেমায় চিত্রনায়ক অনন্ত জলিলের বিপরীতে অভিনয় করেন তিনি। এরপর একসঙ্গে অনেকগুলো সিনেমায় অভিনয় করেছেন অনন্ত-বর্ষা। কাজ করতে গিয়ে প্রেম ও বিয়ে। বর্তমানে দুই সন্তান নিয়ে তারা সুখী দম্পতি।

Facebook Comments Box