বিদেশ থেকে এলে কোয়ারেন্টিনের যেসব শর্ত মানতে হবে

বিদেশ থেকে আগত যাত্রীদের কোয়ারেন্টিন সংক্রান্ত একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করেছে বেসরকারি বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ বেবিচক। বাইরের দেশ থেকে এলে এ বিষয়গুলো মানতেই হবে।

বিমানে যাতায়াতের জন্য সব যাত্রীর করোনা নেগেটিভের সার্টিফিকেট থাকতে হবে। পিসিআরভিত্তিক পরীক্ষাটি ফ্লাইট ছাড়ার ৭২ ঘণ্টার মধ্যে করা হবে। আগত যাত্রীরা যারা এর মধ্যে করোনার দুই ডোজ টিকা নিয়েছেন তারা টিকা

দেওয়ার প্রমাণপত্রসহ পিসিআরভিত্তিক করোনা নেগেটিভের সার্টিফিকেট সঙ্গে রাখবেন। তাদের ১৪ দিনের হোম কোয়ারেন্টিন সম্পন্ন করতে হবে। স্থানীয় প্রশাসন তাদের কোয়ারেন্টিনের ব্যবস্থা করবে।

আগত যাত্রীরা যারা পিসিআরভিত্তিক করোনা নেগেটিভ রিপোর্ট এবং করোনার প্রথম ডোজ টিকা দিয়েছেন (টিকা দেওয়ার প্রমাণপত্রসহ) এবং যারা এখনো ভ্যাকসিন নেয়নি তাদের বাধ্যতামূলকভাবে সরকার মনোনীত সুবিধাসহ

হোটেল বা যাত্রীর নিজ খরচে তিন দিনের কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে। তিন দিনের কোয়ারেন্টিন শেষে নমুনা সংগ্রহ করা হবে। রিপোর্ট যদি নেগেটিভ আসে, তবে ১১ দিনের হোম কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে। হোম কোয়ারেন্টিন

নিশ্চিত করবে স্থানীয় কর্তৃপক্ষ। আর রিপোর্ট পজিটিভ এলে সরকার মনোনীত সুবিধার আওতায় নিজ খরচে আইসোলেশনে থাকতে হবে।

সংশ্লিষ্ট এয়ারলাইনস যাত্রীদের বোর্ডিং পাস দেবে কিছু শর্ত সাপেক্ষে। (ক) দুই ডোজ ভ্যাকসিন নেওয়ার প্রমাণ থাকতে হবে। (খ) যারা ভ্যাকসিন নেননি তাদের সরকারি ব্যবস্থায় কোয়ারেন্টিনে থাকার অথবা নিজ উদ্যোগে যে

হোটেলে কোয়ারেন্টিনে থাকবে, তার বুকিং থাকতে হবে। সরকারি প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে আসন না পাওয়া গেলে হোটেল রিজার্ভেশনের বিষয়টি নিশ্চিত করার পরেই যাত্রীকে বিমানে উঠতে দেওয়া হবে।

Facebook Comments Box