বিধিনিষেধের বিষয়ে যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার

মহামারি করোনাভাইরাসের সংক্রমণ উদ্বেগজনক হারে বেড়ে যাওয়ায় এখন সবচেয়ে বিপর্যস্ত অবস্থায় রয়েছে দেশ। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করা হলেও সংক্রমণ-মৃত্যু কোনোটিই কমছে না। এই পরিস্থিতিতে করণীয় ঠিক করতে মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) দুপুরে গুরুত্বপূর্ণ এক বৈঠকে বসে সরকার।বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয় চলমান বিধিনিষেধ ৫ আগস্ট পর্যন্তই চলবে।

দুপুরে মন্ত্রিপরিষদ সভাকক্ষে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সভাপতিত্বে বৈঠক শুরু হয়। বৈঠকে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক, মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম, পুলিশ প্রধান, বিজিবি প্রধানসহ সংশ্লিষ্ট দফতর ও বিভাগের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠক শেষে সভার সিদ্ধান্ত নিয়ে সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। তিনি বলেন, চলমান লকডাউন ৫ আগস্ট পর্যন্তই চলবে। শিল্পপতিরা লকডাউননের মধ্যে স্বাস্থ্যবিধি মেনে গার্মেন্টস খুলে দেয়ার দাবি জানিয়েছিলেন, আমরা সেই দাবি রাখতে পারছি না।

বিমানবাহিনী প্রধানকে পরানো হলো এয়ার চিফ মার্শালের র‌্যাঙ্ক ব্যাজ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপস্থিতিতে গণভবনে এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে চিফ অব এয়ার স্টাফ এয়ার মার্শাল শেখ আব্দুল হান্নানকে এয়ার চিফ মার্শালের র‌্যাঙ্ক ব্যাজ পরানো হয়েছে। সূত্র : বাসস

প্রধানমন্ত্রীর সহকারি প্রেস সচিব এম এম ইমরুল কায়েস বলেন, চিফ অব আর্মি স্টাফ জেনারেল এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ এবং ভারপ্রাপ্ত চিফ অব নেভাল স্টাফ রিয়ার অ্যাডমিরাল এম আবু আশরাফ এয়ার চিফকে এই এয়ার চিফ মার্শালের র‌্যাঙ্ক ব্যাজ পরিয়ে দেন।

ইমরুল কায়েস বলেন, অনুষ্ঠানের পর প্রধানমন্ত্রী বিমানবাহিনীর প্রধানকে দায়িত্ব পালনে তার সাফল্য কামনা করেন এবং বিমানবাহিনী প্রধান এ সময় প্রধানমন্ত্রীর কাছে দোয়া চান।

প্রধানমন্ত্রীর অফিস সচিব মো. তোফাজ্জল হোসেন মিয়া, বিশেষ নিরাপত্তা বাহিনীর মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মো. মজিবুর রহমান এবং প্রধানমন্ত্রীর সামরিক সচিব মেজর জেনারেল (অব.) নকিব আহমেদ চৌধুরী এ সময় অন্যদের মাঝে উপস্থিতি ছিলেন।

এর আগে ১২ জুন বিকেলে শেখ আব্দুল হান্নান বাংলাদেশ বিমানবাহিনীর প্রধান হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন।

Facebook Comments Box