যমুনার চরে উট-পাহাড় বানিয়ে আরবি গান গাইলেন হিরো আলম, দেখে অবাক দর্শকরা

অবশেষে মু’ক্তি পেল আশরাফুল আলম ওরফে হিরো আলমের আরবি গান। হিরো আলমের স’ঙ্গে গাইলেন রাব্বী খান। হিরো আলম মানে আলোচনা-সমালোচনা। এসবকে তো’য়া’ক্কা না করেই তিনি এগিয়ে চলছেন নিজের মতো করে।

কোথায় থামতে হবে, কোথায় নামতে হবে এসব বিষয়কে মাথায়ই নেন না এই সোশ্যাল মিডিয়ার আ’লোচিত ব্যক্তি।

একের পর এক গান গাইছেন। আর আলো’চনায়ও থাকছেন সেভাবেই। তবে হিন্দি গান গেয়ে বেশ তো’পের মু’খে পড়েন আশরাফুল আলম ওরফে হিরো আলম। ‘বাবু খাইছো’ নামের একটি গান গেয়ে গায়ক হিসেবে আ’ত্মপ্র’কাশ

করেন আলম। এরপর নানা ধরনের গান গেয়ে অবশেষে গাইলেন হিন্দি গান। এক শ্রেণির নেটিজেন অবশ্য হিরো আলমকে ছেড়ে দেননি।

এবার হিরো আলম গাইলেন আরবি গান। আরবীয়দের পোশাকে আ’চ্ছা’দিত হয়ে মরুভূমির বুকে হেঁটে হেঁটে হিরো আলম গেয়ে যাচ্ছেন গান। কেন এই গান? হিরো আলম অকপটে বললেন, ‘রমজান মাস, তাই আরবি ভাষার গান গাওয়ার অনুরোধ করছে ভ’ক্তরা, তাই গাইলাম আর কি’। জানালেন, শিগগিরই গানটি মুক্তি পাবে।

আরবি গানে তাকে শেখের ভূমিকায় দেখা যাচ্ছে, ঠিক আছে। উষ্ণ মরুভূমিতে গেয়ে যাচ্ছেন সেটাও ঠিক আছে; কিন্তু এই ল’কডা’উনে মধ্যপ্রাচ্যের মরুভূমিতে গেলেন কিভাবে? হেসে ফেললেন হিরো আলম। বললেন, ‘না ভাই, এইটা

মরুভূমি না। এই যমুনা নদীর চর। বগুড়ার সারিয়াকা’ন্দিতে যমুনার চরে শু’টিং করছি। অনেক লম্বা চর, মরুভূমির মতো লাগে। মানুষ তেমন বুঝবে না’। চরের মধ্যে দেখা গেল উট। কেন? কিভাবে? হিরো আলমেরই জবাব, ‘ভাই উট আর পাহাড় এগুলা এডিটিং করে লাগানো হইছে’।

আশরাফুল আলম ওরফে হিরো আলম বগুড়ার একজন কেবল ব্যবসায়ী। স্থানীয়ভাবে মিউজিক ভিডিও করে আলোচিত হন। এরপর নানাভাবেই আলোচিত এই সোশ্যাল সেলেব। সংসদ নির্বাচনে অংশ নিয়ে দেশের বিভিন্ন টেলিভিশনের টক শোতে কথা বলার সুযোগ পান। এভাবেই নানা কারণে তিনি আলোচনায় রয়েই যাচ্ছেন।

Facebook Comments Box