রাজধানীতে নিজের শরীরে আগুন দিলেন সংবাদ উপস্থাপিকা

রাজধানীর মিরপুরে নিজের শরীরে আগুন ধরিয়ে দিয়েছেন এক নারী। রোরবার রাত ৮টার দিকে পূর্ব কাজীপাড়ায় ৪৮১ নম্বর বাসার সামনে এ ঘটনা ঘটে। অগ্নিদগ্ধ ওই নারীর নাম মাহমুদা সিহাবুম মুবিন মৌ (৩০)। তিনি এক সময় একটি বেসরকারি চ্যানেলে সংবাদ উপস্থাপিকা ছিলেন। জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থার (এনএসআই) একটি সূত্র জানিয়েছে, স্বামী একাধিক বিয়ে করায় ক্ষোভে ওই নারী নিজের আগুন দিয়েছেন।

তার শরীর পুড়ে গেছে। তাকে রাতেই শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়েছে। অগ্নিদগ্ধ মৌয়ের স্বামীর নাম ইরফান হাইউম। তিনিও একটি বেসরকারি টেলিভিশনে চাকরি করেন বলে জানা গেছে। মিরপুর থানার ওসি মোস্তাজিজুর রহমান যুগান্তরকে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, স্বামী-স্ত্রী দুজনেই সাংবাদিক। মেয়েটি আগে একটি বেসরকারি টিভি চ্যানেলে সংবাদ পাঠ করতেন।

তার স্বামীও টিভি চ্যানেলে কাজ করেন। হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, রোববার রাতে হাইউম নামের এক ব্যক্তি মৌকে দগ্ধ অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করেন। ভর্তির সময় হাইউম তিনি নিজেকে ওই নারীর স্বামী বলে পরিচয় দেন। তবে কিভাবে মাহমুদা দগ্ধ হয়েছেন তা বলেননি তিনি। মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ ফাড়ির ইনচার্জ (পরিদর্শক) মো. বাচ্চু মিয়া চিকিৎসকের বরাত দিয়ে বলেন,

মৌয়ের শরীরের ৪৬ শতাংশ পুড়ে গেছে। তার অবস্থা আশংকাজনক। তাকে হাই ডিপেন্ডেন্সি ইউনিটে রাখা হয়েছে। এদিকে খবর পেয়ে মৌয়ের স্বজনরা হাসপাতালে ছুটে আসেন। তার মা সালমা বেগম বলেন, গত বিশ দিন ধরে মেয়ের কোনো খোঁজ পাইনি। রাতে তার দগ্ধ হওয়ার সংবাদ পাই। মৌয়ের মামা শামীম যুগান্তরকে বলেন, খবর শুনে হাসপাতালে যাই। রাতে মৌয়ের মা মিরপুর থানায় গেলে ওসি জানান, সে নিজেই নিজের শরীরে আগুন দিয়েছে।

Facebook Comments Box