শিক্ষার্থীদের চাপে পুলিশের গাড়িকে মামলা দিলো পুলিশ

রাজধানীর রামপুরায় একদিকে যখন শিক্ষার্থীরা আন্দোলন করছিলো তখন অন্যদিকে বিভিন্ন যানবাহনের প্রয়োজনীয় কাগজ এবং চালকদের লাইসেন্স পরীক্ষায় নামেন শিক্ষার্থীদের একটি অংশ। এসময় বিভিন্ন মন্ত্রণালয় এবং পুলিশের ব্যবহৃত কয়েকটি যানবাহনের কাগজ না থাকায় সেগুলো আটক করে রামপুরা পুলিশ বক্স নিয়ে আসেন শিক্ষার্থীরা।

প্রাথমিক ভাবে পুলিশ মামলা করতে না চাইলে শিক্ষার্থীদের দাবি নিজ বাহিনীর সদস্যদের বিরুদ্ধে মামলা করতে বাধ্য হন তারা।

মঙ্গলবার (৩০ নভেম্বর) সকাল থেকে নিরাপদ সড়কসহ নয় দফা দাবিতে রাজধানীর বিভিন্ন সড়কে বিক্ষোভ করেছে রাজধানীর বিভিন্ন স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীরা। সোমবার (২৯ নভেম্বর) রাতে বাসচাপায় শিক্ষার্থী মাইনুদ্দীন নিহতের ঘটনায় জড়িতদের দ্রুত বিচারের দাবিও জানান তারা।

সহপাঠী হত্যার বিচার দাবিতে মঙ্গলবার সকালে রামপুরা-বাড্ডা সড়কে অবস্থান নেয় বিভিন্ন শিক্ষার্থী প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা। হাফ পাশের দাবিতে দশ দিন ধরে আন্দোলনে এবার যুক্ত হলো দাবি সহপাঠী হত্যার বিচার।

এসময় শিক্ষার্থীরা জানান, আর কোনো আশ্বাস নয়। ন্যায়বিচার করতে হবে। সড়কে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতেই হবে। এছাড়াও তারা বলেন, রাজধানীতে হাফ পাসের যে ঘোষণা দেয়া হয়েছে সেটি বহাল রেখে সারাদেশেও হাফ পাস চালু বহাল রাখতে হবে।

একই রকম আন্দোলন চলে রাজধানীর ধানমন্ডিতেও। মঙ্গলবার দুপুর থেকে ধানমন্ডি ২৭ নম্বরে অবস্থান নেন শিক্ষার্থীরা। দাবি আদায়ে সেখানে প্রায় দেড় ঘণ্টা সেখানে অবস্থান করে। আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণাও দেন তারা।

Facebook Comments Box